আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন টাঙ্গাইলের সাংবাদিক মির্জা শাকিল

প্রকাশিত : ৪ জুলাই, ২০১৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
টাঙ্গাইল
সাংবাদিক মির্জা শাকিলের হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন এএসই এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির সাভুসকিন। ছবি : গণবিপ্লব

দেশের সর্বাধিক প্রচারিত ইংরেজি জাতীয় দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের টাঙ্গাইল প্রতিনিধি মির্জা শাকিল মর্যাদাপূর্ণ এএসই ইন্টারন্যাশনাল ফটোজার্নালিষ্ট অ্যাওয়ার্ড-২০১৯ প্রতিযোগীতায় বিজয়ী হয়েছেন।

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে ৩ জুলাই (বুধবার) এক অনুষ্ঠানে মির্জা শাকিলের হাতে এই  পুরস্কার তুলে দেন এএসই এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির সাভুসকিন।

এর আগে প্রতিযোগীতার আয়োজকদের আমন্ত্রনে এবং সার্বিক ব্যবস্থাপনায় উক্ত পদক প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মির্জা শাকিল ১ জুলাই মস্কো পৌঁছান।

প্রথমবারের মত আয়োজিত আন্তর্জাতিক এই ফটোসাংবাদিক প্রতিযোগীতায় বিভিন্ন দেশের অংশগ্রহনকারী আলোকচিত্রীদের বাছাইকৃত ছবিগুলি নিয়ে মস্কোর এএসই তে একটি আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। সেখান থেকে আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ড মির্জা শাকিলের তোলা “সেলিব্রেটিং লাইফ” শিরোনামের ছবিটিকে “মোবাইল ফোন” ক্যাটাগরীতে বিজয়ী ঘোষনা করেন। 

মির্জা শাকিল ছাড়াও, প্রতিযোগীতায় হাঙ্গেরীর পিটার কিস, রিপাবলিক অব বেলারুসের আলেক্সি জেরাসিমেনকো এবং ভারতের বিক্রম রেড্ডি যথাক্রমে “পিপল” “ওয়াইল্ড লাইফ” এবং “এনার্জি ফর ফিউচার” ক্যাটাগরীতে বিজয়ী হয়ে পুরস্কার লাভ করেন। 

সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে ৫ জুলাই মির্জা শাকিলের দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিশিষ্ট সাংবাদিক মির্জা শাকিল ইতিপূর্বে দুইবার শিশুদের অধিকার রক্ষায় জাতিসংঘের অর্থায়নে পরিচালিত ইউনিসেফ প্রদত্ত মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড, সাংবাদিকতার মাধ্যমে দেশের পোল্ট্রি শিল্পে অবদান রাখায় জাতীয় পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড, দ্য ডেইলি স্টার থেকে দুইবার শ্রেষ্ঠ জেলা প্রতিনিধির পুরস্কার, টাঙ্গাইল রিপোর্টারস ইউনিটির শ্রেষ্ঠ সাংবাদিক পুরস্কার, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাব সম্মাননাসহ বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান থেকে পুরস্কার ও সম্মাননা লাভ করেছেন।

সর্বজন স্বীকৃত সৎ এবং নিষ্ঠাবান এই সাংবাদিক টাঙ্গাইল শহরের ভিক্টোরিয়া রোডস্থ মরহুম আইনজীবি মির্জা আতাহার হোসেন এবং কালিহাতী পাইলট গার্লস হাই স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষিকা আশরাফ্ফুনেছা খানমের দ্বিতীয় পুত্র।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ