প্রকাশকাল: ৩ জুলাই, ২০১৮

কালিহাতীতে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেপ্তার

কালিহাতী সংবাদদাতাঃ 

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে (৭) ধর্ষণের অভিযোগ প্রধান আসামী ধর্ষক মাহবুব রহমানকে (১৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ছোট বাসালিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মাহবুব রহমান কালিহাতী উপজেলার মালতি গ্রামের প্রবাসী তায়েজ উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার মেয়েটি উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের মালতি গ্রামের বাসিন্দা। তার পিতা কৃষকের কাজ করে। অন্যদিকে মাহাবুব একই গ্রামে পাশাপাশি বসবাস করতো। তার পিতা তায়েজ প্রবাসে থাকে। ঘটনার দিন ৪ জুন ওই শিক্ষার্থীর পরিবার বাসায় ছিল না। অন্যদিকে মাহাবুবের মাও বাসায় ছিল না। এ সুযোগ নিয়ে মাহাবুব ওই ছাত্রীকে কবুতর পাখি দেয়ার কথা বলে তাদের ঘরের ভিতরে নিয়ে যায়। সেখানে সে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষণের শিকার মেয়েটি কান্নাকাটি করলে বিষয়টি প্রকাশ পায়। পরে এ ঘটনায় গত ৯ জুন মেয়েটির পিতা বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। এর পর থেকে সে পলাতক থাকে।

এ ব্যাপারে কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোশারফ হোসেন গণবিপ্লবকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ছোট বাসালিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের মূল আগামীকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ধর্ষক মাহবুব রহমান আত্মগোপনে চলে যায়। তাকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলে ওসি জানান।

এ রকম আরোও খবর

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ