কালিহাতীতে দপ্তরী নিয়োগে কোটি টাকার বাণিজ্যের অভিযোগ

প্রকাশিত : ৩০ আগস্ট, ২০১৮
গণবিপ্লব
রিপোর্ট
গণবিপ্লব রিপোর্টঃ 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে বেকারত্ব দূরীকরণ,ডিজিটাল বাংলাদেশ ও নিরক্ষর মুক্ত দেশ গড়ে তোলার ঘোষনা দিয়েছেন। এ ঘোষনাকে বাস্তবায়ন করার জন্য অন্যান্য জেলার নেতাকর্মীরা অঙ্গিকার করলেও টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) সংসদীয় আসনে এর চিত্র মিলেছে ভিন্ন।

উপজেলার ৪৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী কাম নৈশপ্রহরী নিয়োগে কোটি টাকা বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। প্রার্থীদের কাছ থেকে ইন্টার্ভিউয়ের আগেই ৬ থেকে ৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। এর কারনে জামায়াত-বিএনপির প্রার্থীরা মোটা অংকের বিনিময়ে চাকুরী পাচ্ছে। ত্যাগী আ’লীগ কর্মীরা টাকার দাপটে চাকুরীর ধারের কাছেও যেতে পারছেন না। ৫-৬ লাখ টাকা করে অগ্রিম নেওয়ার বিষয়টি এখন সর্বত্র আলোচিত। এতে সরকারি দল আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে অপরদিকে দলের তৃণমূল কর্মীসহ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা টাকার প্রতিযোগীতায় নিয়োগ পক্রিয়া থেকে ছিটকে পরছে বলে দলের অনেক নেতাই স্বীকার করেছেন।

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রার্থী যাচাই বাছাইয়ে সহযোগিতা করার কথা বলা হয়েছে। এই সুযোগে দলের নেতারা প্রার্থীদের চাকুরী দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে মোটা অংকের অর্থ দাবী করছেন। কোথাও কোথাও দাবি মত অর্থ লেনদেন হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কালিহাতী উপজেলার তৃণমূল নেতা-কর্মীরা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট আমাদের অাকুল আবেদন,গোয়েন্দা সংস্থা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষদের দিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে,যারা দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করছেন,তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি নিশ্চিত হলেই জাতির পিতার আত্না শান্তি পাবেন।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ