গোপালগঞ্জে সহপাঠীর হাতে স্কুলছাত্র খুন

প্রকাশিত : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতাঃ

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সহপাঠীর হাতে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্র নিহত হয়েছে।

তার নাম বরকত উল্লাহ প্রিন্স।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার রামদিয়া এসকে উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

রামদিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক হাদি আব্দুল্লাহ জানান, সকালে প্রাইভেট পড়ার সময় কোচিং সেন্টারে সহপাঠী শাহ আলমের সঙ্গে প্রিন্সের কথা কাটাকাটি হয়। পরে স্কুল থেকে প্রিন্সকে বাইরে ডেকে নিয়ে শাহ আলম তার পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এসময় অন্য সহপাঠী ও শিক্ষকরা প্রিন্সকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

শাহ আলমকে ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

নিহতের বাবা হানিফ মোল্যা জানান, আজ সকালে আমার ছেলেকে স্কুলে দিয়ে আসি। এরপর জানতে পারি তার সহপাঠী শাহ আলম ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে গেছে। পরে ওকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। আমি আমার সন্তান হত্যার বিচার চাই।

গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সঞ্জিব কুমার ধর জানান, নিহত স্কুলছাত্রের পেটে ছুরির কোপ রয়েছে। চিকিৎসার শুরুতেই সে মারা যায়।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া