গোপালপুরে সিএইচসিপিদের প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী, ২০১৮
গণবিপ্লব
রিপোর্ট

এ কিউ রাসেল:


বাংলাদেশ কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (বি.সি.এইচ.সি.পি.এ) এসোসিয়েশন’র কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক চাকুরী জাতীয় করণের দাবিতে চলমান কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সংগঠনের টাঙ্গাইলের গোপালপুর শাখার উদ্যোগে সোমবার (২২ জানুয়ারি) উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাজমুন নাহারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছেন।
কর্মসূচীতে সংগঠনের গোপালপুর শাখার সভাপতি মো. সোহেল রানা, সহ-সভাপতি সুবর্না আক্তার, সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান রাজিব, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. কামাল হোসেন, তাহমিনা খাতুন, দাবী বাস্তবায়ন কমিটির উপজেলা শাখার আহ্বায়ক মো. সাগর আহমেদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মাসুদ আল মামুন প্রমুখ উপস্থিথ ছিলেন।
প্রসঙ্গত, চাকুরী জাতীয় করণের দাবিতে সারা দেশের ন্যায় গত ২০ জানুয়ারি শনিবার থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্ত্বরে ৩দিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচী শুরু করে সিএইচসিপিরা। এতে উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের বিভিন্ন কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত ২৬জন কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) অংশ গ্রহন করে।
সিএইচসিপিরা, সারা দেশের সাড়ে ৪হাজার বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তানসহ ১৪হাজার কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) দের চাকুরী দ্রুত জাতীয় করণে গণমানুষের নেতা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করে আসছেন।
সংগঠনের কেন্দ্রীয় দাবী বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য সচিব মো. নঈম উদ্দিন ও যুগ্ম আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে জানা যায়, ১৮ জানুয়ারী জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কর্মসূচীর ঘোষণা করা হয়। ২০ থেকে ২২ জানুয়ারী স্ব স্ব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সকাল ৯টা হতে বিকেল ৩টা অব্দি অবস্থান ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান। ২৩ জানুয়ারী স্ব স্ব জেলার সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ৯টা হতে বিকেল ৩টা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচী এবং সিভিল সার্জন, জেলা প্রশাসক এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান। ২৪ থেকে ২৬ জানুয়ারী কর্মবিরতি এবং এর মধ্যে সরকার ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে চাকুরী জাতীয় করণের ঘোষণা না আসলে, ২৭ জানুয়ারী ৯টা থেকে ৩১জানুয়ারী পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে লাগাতার কর্মসূচী চলবে, যদি তাতেও সরকার এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে চাকুরী জাতীয় করণের দাবী বাস্তবায়ন না করেন তাহলে আগামী ১ ফেব্রুয়ারী থেকে চাকুরী রাজস্ব করণের একদফা দাবী বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন শুরু হবে।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ