ঘাটাইলে ছাত্রলীগের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল, ২০২০

ঘাটাইল ৩ এপ্রিল : করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ প্রতিরোধে দেশব্যাপী চলছে অঘোষিত লকডাউন। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন নিম্নআয়ের মানুষ। করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব ও সংকটকালীন সময়ে অতি দরিদ্র, দিনমজুর, কর্মহীন ও অস্বচ্ছল ব্যক্তিদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার (৩এপ্রিল) দুপুর ১২টায় ঘাটাইল উপজেলা দিগড় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে কদমতলী হাসান পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়নের প্রায় ৩ শত পরিবারের মধ্যে চাল, ডাল, আলু, পেয়াজ, সাবান বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,টাঙ্গাইল ৩ (ঘাটাইল) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ আমানুর রহমান খান রানা,উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকার,দিগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মামুন, দিগড় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম শাহজাহান মোল্লা,সাধারণ সম্পাদক মো.আতিকুর রহমান (আলমগীর),উপজেলা যুবলীগের সদস্য সুমন খান বাবু,বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা চিকিসক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ডা:সুলতান মাহমুদ,উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক হোসেন খান,৫নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ,৭নং দিগড় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান হাসান জনি, সিনিয়র সহ সভাপতি মো.শরীফ ,অনুপম সাহা,সাধারণ সম্পাদক মো.ফারুক হোসেন,বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী মুনছুর আলী প্রমুখসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ছাত্রলীগের অন্যান্যনেতা কর্মীরা।

এসময় বক্তরা বলেন,প্রাণঘাতী নোভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পুরো বিশ্বের মানুষ এখন গৃহবন্দী। এসময় দিনমজুর, রিকশা-ভ্যানচালক, পরিবহন ও রেস্টুরেন্ট শ্রমিক, ফেরিওয়ালা ও ছিন্নমূল মানুষরা, যারা দিন এনে দিন খায়, তারা খুবই অভাবে পড়েছেন। এসব অভাবী মানুষ একদিন রোজগার না করলে তাদের মুখে আর খাবার ওঠে না। পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে থাকা এই মানুষগুলোর কথা চিন্তা করে তাদের পাশে এই মুহূর্তে দাঁড়ানোকে একজন বিবেকবান মানুষের কাজ বলে মনে করি। তাদের মুখে দুমুঠো খাবার তুলে দিতে পারলে নিজেদের ভাল লাগবে।

তাছাড়া, বঙ্গবন্ধুর সোনার দেশে কোনো মানুষ না খেয়ে কষ্ট করবে না, আমরা তা করতে দিবো না। সেই ল্েয আমরা এসব ছিন্নমূল অসহায় মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী তুলে দিচ্ছি।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সকলকে ধৈর্য্য নিয়ে বাড়িতে অবস্থান ও গুজব এড়িয়ে চলে সবাইকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন জীবন-যাপনের অনুরোধ জানান।

এদিকে, প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী পেয়ে হতদরিদ্র মানুষগুলোর চোখে-মুখে খুশির আভাস ল্য করা গেছে। করোনা পরিস্থিতির দুর্দিনে এমন সাহায্য পেয়ে অনেকে তাদের পরিজনদের নিয়ে চারটা ডালভাত খেতে পারবেন বলে জানিয়েছেন খাদ্যসামগ্রী পাওয়া পরিবারগুলো। এবং ভবিষতে যে কোনো দুর্যোগে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এইসব ছিন্নমূল অসহায় মানুষগুলোর পাশে থাকবেন- এই আশা ব্যক্ত করেন তারা।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া