নাগরপুরে শিক্ষিকা লাঞ্ছিত; প্রতিবাদ সভা

প্রকাশিত : ২১ মার্চ, ২০২০

নাগরপুর ২১ মার্চ : টাঙ্গাইলের নাগরপুরে সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপিসহ কয়েকজনের হাতে লাঞ্ছিতের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছে নাগরপুর সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদ। শনিবার (২১ মার্চ) সকালে কলেজ শিক্ষক মিলনায়তনে এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়। সভায় দোষীদের শাস্তির দাবীতে নানাবিধ কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়।

নাগরপুর সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদের সাধারন সম্পাদক মো. মুক্তা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় শিক্ষকরা কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক শামীমা ইয়াসমীনকে লাঞ্ছিতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা, ক্ষোভ জানান ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন। কলেজ ছাত্র সংসদের ছাত্রলীগ মনোনীত সাবেক ভিপি আল-মামুন সহ ঘটনায় জড়িত সকলের শাস্তির দাবীতে কর্মবিরতি সহ নানাবিধ কর্মসূচী গ্রহনের সিদ্ধান্ত নেন।

এসময় মো. মুক্তা মিয়া উপস্থিত শিক্ষক ও সাংবাদিকদের বলেন, দেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থাকায় আমরা খুব সীমিত আকারে আমাদের এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেছি। শিক্ষিকা লাঞ্ছিতের ঘটনায় আসামী গ্রেপ্তার হওয়ার পর শুক্রবার জামিন পাওয়ায় আমরা উদ্দিগ্ন। তাই দোষীদের শাস্তির দাবীতে আগামী ২৩ মার্চ কর্মবিরতি, ২৪ মার্চ স্থানীয় সাংসদ, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারক লিপি প্রদান, শিক্ষাবোর্ড ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বখাটেদের সনদ বাতিলের জন্য আবেদন, শিক্ষা মন্ত্রনালয়কে ঘটনার সার্বিক বিষয় অবহিতকরন, স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় সরকারদলীয় নেতৃবৃন্দকে অবহিতকরন সহ আমরা নানাবিধ কর্মসূচী গ্রহন করেছি।

উল্লেখ্য গত ১৯ মার্চ রাতে নাগরপুর সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক শামীমা ইয়াসমীন সদর বাজারে চশমা মেরামত করতে গেলে ভিপি মামুন, আওয়ামী লীগ নেতা বিপ্লব ও এ্যাম্বুলেন্স চালক বাবু তাকে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ করেন। প্রতিবাদ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন,গোলাম রব্বানী, রওশন আলম,হাফসা বেগম মুন্নী, মো.শরীফ মিয়া, কুশল ভৌমিক সহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া