প্রকাশকাল: ৮ জানুয়ারী, ২০১৮

বাঁশের সাকোঁই ৩০ হাজার মানুষের ভরসা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে সেতুর অভাবে ১৫ গ্রামের মানুষের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। উপজেলার কামারপাড়া বাজার সংলগ্ন ধলেশ্বরীর শাখা নদীর ওপর একটি সেতু না থাকায় এ দুভোর্গের শিকার হতে হচ্ছে। ফলে বর্ষাকালে নৌকা আর শুস্ক মৌসুমে বাঁশের সাকোঁতে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ ধলেশ্বরীর শাখা নদী পারাপার হচ্ছে।
স্থানীয়রা জানায়, মির্জাপুর উপজেলার দক্ষিনাঞ্চলের আমড়াইল, তেলিপাড়া, ধুনট, ছোটগবড়া, বড়গ্ড়া, গোমগ্রাম, চুন্যা, জাদপপুর, উত্তরে কামারপাড়া, হাড়য়া, মারিশন, ভাওড়া, শশধরপট্টি, আড়াইপাড়া, চানপুর, চামুটিয়াসহ বিভিন্ন গ্রামের হাজারো মানুষ প্রতিদিন মির্জাপুর-গোমগ্রাম ভায়া কামারপাড়া রাস্তায় প্রতিদিন যাতায়াত করেন। এই সড়কটি অধিকাংশই পাকা হয়ে গেছে। প্রতিদিন শতশত হালকা যানবাহনও চলাচল করছে। কিন্তু কামারপাড়া নামক স্থানে সেতু না থাকায় প্রতিদিন তাদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

কামারপাড়া বাজারের ব্যবসায়ী আজাহার বলেন, ওই স্থানে একটি সেতু নির্মাণ হলে অত্র এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হবে।
ছোট গবড়া গ্রামের সিদ্দিক হোসেন বলেন, জনদুর্ভোগ নিরসনে ওই নদীতে একটি সেতু নির্মাণ অত্যন্ত জরুরি।

এ ব্যাপারে ভাওড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন বলেন, কামারপাড়া বাজার সংলগ্ন ধলেশ্বরীর শাখা নদীর উপর একটি সেতু নির্মাণ অতি জরুরী। এ বিষয়ে স্থানীয় এমপির সাথে আলাপ করা হয়েছে। তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে ঐ নদীর উপর একটি সেতু নির্মাণের ব্যবস্থা করবেন বলে শ্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

এ রকম আরোও খবর

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ