বিয়ের পিঁড়িতে বসা হলো না চঞ্চলের

প্রকাশিত : ১০ ডিসেম্বর, ২০২০

বিয়ের পিঁড়িতে বসা হলো না মালয়েশিয়া প্রবাস ফেরত চঞ্চলের (২৩)। গত রোববার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে শুভলগ্নের কয়েক ঘন্টা আগেই বিয়ের বাজার শেষে বাড়ি ফেরার পথে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার আইসড়ায় মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনার শিকার হন জামিল হাসান চঞ্চল (২৩)। বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে চলে যান সে না ফেরার দেশে।

নিহত চঞ্চল টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার ১নং ফুলকি ইউনিয়নের আইসড়া পশ্চিমপাড়া (খালের পাড়) এলাকার ইউসুফ আলীর একমাত্র ছেলে।

সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ফুলকি ইউনিয়নের আউসড়া গ্রামের ইউপি সদস্য আল ইমরান আরিফ।

স্বজনরা জানায়, গত দেড় মাস আগে মালয়েশিয়া থেকে বাড়িতে ছুটিতে আসেন চঞ্চল। মাত্র কয়েকদিন আগেই পার্শ্ববর্তী কালিহাতি উপজেলার গোলড়া গ্রামের মজনু মিয়ার প্রথম কন্যার সাথে বিয়ে রেজিস্ট্রি হয়। ৭ ডিসেম্বর বিবাহ সম্পন্নের কথা ছিল। গত রোববার (৬ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে বিয়ের বাজার শেষে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার আইসড়ায় মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনার শিকার হয় জামিল হাসান চঞ্চল (২৩)। বাজারের পশ্চিম পাশে ব্যাটারিচালিত অটো রিক্সাকে ওভারটেক করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজি চালিত অটো রিক্সার সাথে তার মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে সিএনজি’র সামনের গ্লাসের উপর মুখথুবড়ে পড়ে। এতে চঞ্চলের মুখ ও মাথার সামনের অংশ থেতলে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় বন্ধু ও স্বজনরা গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় স্বজনরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এনাম মেডিক্যাল হসপিটালে নিয়ে যায়। সেখানে ৭ ডিসেম্বর অস্ত্র পাচারের পর তাকে আইসিইউ-তে নিবির পর্যবেক্ষনে রাখা হয়। দীর্ঘ চারদিন হাসপাতালের আইসিইউ-তে নিবির পর্যবেক্ষনে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল ১১টার দিকে চলে যান সে না ফেরার দেশে।

বিয়ের প্রাক্কালে বরের এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর শোকে বার বার মুসড়ে পড়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ছে কনে।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিন।