ভূঞাপুরে প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ

প্রকাশিত : 30 অক্টোবর, 2019
নিজস্ব প্রতিবেদক
টাঙ্গাইল
প্রতীকী ছবি

ভূঞাপুর ৩০ অক্টোবর : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার পরও আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অবৈধ সংযোগকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করে উল্টো তার কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

গত ১২ অক্টোবর উপজেলার গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলী বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। এঘটনায় ওই প্রধান শিক্ষকের তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি ভূঞাপুর পিডিবির সহকারি প্রকৌশলী ইবরাহীম খলিলের বিরুদ্ধে।


জানা গেছে, উপজেলার গোবিন্দাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বাড়িতে প্রায় ৪ বছর আগে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়া হয়। এরপর থেকেই ওই বাড়ির মিটারে কারচুপি করে মিটারের বাইরে থেকে বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে ব্যবহার করা হয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ১২ অক্টোবর ভূঞাপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের (পিডিবি) সহকারি প্রকৌশলী ইবরাহীম খলিল ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধভাবে টাঙানো বিদ্যুৎ সংযোগ দেখতে পায়। এসময় বিদ্যুৎ সংযোগের তার জব্দ করা হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে মোটা অঙ্কের ঘুষ নিয়ে কাটা তারসহ গ্রাহককে বিদ্যুৎ অফিসে দেখা করতে বলে। পরে বিদ্যুৎ অফিসের ওই প্রকৌশলী ১০ হাজার টাকার একটি পেলান্টি (জরিমানা) বিল আদায় করে।

ভূঞাপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী ইবরাহীম খলিল জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলীর বাড়িতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়া যায়। পরে সংযোগের তার কেটে জব্দ করা হয়। পরবর্তিতে গড় হিসেব করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে বিদ্যুৎ বিল আদায় করা হয়।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ