ভূঞাপুরে হাট বাজারে মানুষের সরব উপস্থিতি

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ, ২০২০

ভূঞাপুর ২৯ মার্চ : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে সাপ্তাহিক ও দৈনিক হাট-বাজারগুলোতে মানুষের সরব উপস্থিতি দেখা গেছে। তা ছাড়া করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখছে না তারা। উপজেলার কয়েকটি হাট-বাজারে গিয়ে এমন চিত্র দেখা গেছে।

যদিও উপজেলা প্রশাসন, সেনাবাহিনী ও পুলিশ প্রশাসন প্রতিনিয়ত গ্রাম পর্যায়ের হাট-বাজারগুলোতে গিয়ে মানুষকে সচেতন করতে নিয়মিত প্রচারণাসহ অকারনে বাইরে বের না হওয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। চালানো হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের প্রচারনা। তারপরও গ্রাম পর্যায়ের এসব মানুষজন হাট-বাজারগুলো সমাবেত হচ্ছে।

জানা গেছে, করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভাইরাস সংক্রমনরোধে সরকার সারাদেশে সাধারন ছুটি ঘোষণা করে। এতে মানুষজন শহর থেকে গ্রামে চলে আসে। কিন্তু গ্রামে এসে কোয়ারেন্টাইন না মেনে অকারনেই হাট-বাজারগুলো ভীর জমাচ্ছেন। মানছেন না সামাজিক দুরত্ব।

রোববার (২৯ মার্চ) সরেজমিনে উপজেলার গোবিন্দাসী হাটে গিয়ে মানুষের সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। সামাজিক দুরত্ব না মেনেই হাট-বাজারে কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন তারা। এছাড়া বামনহাটা, গাবসারা হাট, অজুর্নার গোবিন্দপুর, নিকরাইল ও পৌরসভার শিয়ালকোল হাটে মানুষের উপস্থিতি দেখা গেছে। এছাড়া দৈনন্দিন বাজারগুলোতে মানুষ ভীর করছে। তবে প্রশাসন ওইসব হাট-বাজারগুলো অভিযান চালালেও পরে পুনরায় আবার মানুষ চলে আসে বাজারে।

হাট-বাজারে আসা মানুষরা গণবিপ্লব-কে জানান, লকডাউন করা ছাড়া মানুষের সমাগম বন্ধ করা সম্ভব নয়। আবার হাট বন্ধ থাকলে মানুষ আর হাটে আসবে না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. নাসরীন পারভীন গণবিপ্লব-কে বলেন, হাট বাজার বন্ধে আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। তবে বাজার কমিটি এবং ইউপি চেয়ারম্যানদের অসহযোগিতার কারণে শত ভাগ সফলতা আসেনি।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া