মধুপুর বনের জায়গা জবরদখল মুক্ত

প্রকাশিত : ২২ মার্চ, ২০২০

মধুপুর ২২ মার্চ : টাঙ্গাইলের মধুপুরে বন বিভাগের দোখলা রেঞ্জের ৮ একর জায়গা কলা বাগান কেটে জবর দখল মুক্ত করা হয়। রোববার ( ২২ মার্চ) এ জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে।

দখলমুক্ত এসব জায়গায় মধুপুর গড় এলাকার লাল মাটির বিক্রির সাথে মিল রেখে সুফল প্রজেক্টের মাধ্যমে হরেক প্রজাতির দেশি গাছের ও পশুপাখির খাদ্যের মিশ্র বাগান করা হবে। করা হবে জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ।

দোখলা রেঞ্জ সূত্রে জানা যায়, মধুপুরের দোখলা রেঞ্জের এলাকায় বন বিভাগের জায়গা স্থানীয় জবরদখলকারীরা জবরদখল করে অবৈধ ভাবে কলা চাষ করে আসছিল। বন বিভাগ ৮ একর জায়গায় কলা বাগান কেটে জবর দখল মুক্ত করেছে। মধুপুর শালবনের ঐতিহ্য ফিরাতে ও সুফল প্রজেক্টের আওতায় দেশী প্রজাতির বাগান ও পশু খাদ্যে পরিবেশ সম্মত মিশ্র বাগান এবং জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ করার জন্য উদ্ধার করা হয়েছে। দখলমুক্তে সহাকারী বন সংরক্ষক, দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তা, কমিউনিটি ফরেস্ট ওয়ার্কার, বন বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারী অংশগ্রহণ করেন। এসব তথ্য বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

এ বিষয়ে দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ গণবিপ্লব-কে জানান, দোখলা রেঞ্জের সিএস দাগ নং ১৩ অরণখোলা মৌজায় স্থানীয়রা দীর্ঘ দিন যাবত জবর দখল করে অবৈধ ভাবে কলা চাষ করে আসছে। জবর দখল মুক্ত করতে ৮ একর জায়গার কলা বাগান কেটে জায়গা উদ্ধার করেছি। উদ্ধারকৃত এ জায়গায় সুফল প্রজেক্টের আওতায় দেশী প্রজাতির বাগান করা হবে।

সহকারি বন সংরক্ষক (টাঙ্গাইল উত্তর) জামাল হোসেন তালুকদার গণবিপ্লব-কে জানান, দোখলা রেঞ্জের ৮ একর জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত এসব জায়গায় সুফল প্রজেক্টের আওতায় দেশী প্রজাতির বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপন এবং পরিবেশ সম্মত টেকসই বাগান ও পশু খাদ্যের জন্য বনায়ন করা হবে ।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিন।