মির্জাপুরে ছয় শিক্ষার্থীর ওপর মোটরসাইকেল উঠিয়ে দিল দুই বখাটে

প্রকাশিত : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ইভটিজিং করে পালিয়ে যাওয়ার সময় ছয় শিক্ষার্থীর ওপর দিয়ে বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল উঠিয়ে দেয় দুই বখাটে। রোববার (২৭ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার হাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এতে গুরুতর আহত এক ছাত্রী ও এক ছাত্রকে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে হৃদয় নামে এক বখাটেকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনতা।

জানা গেছে, উপজেলার হারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থী অষ্টম শ্রেণির শিলা আক্তার, নার্গিস আক্তার, শায়েলা আক্তার, স্মৃতি আক্তার, ষষ্ঠ শ্রেণির ইতি আক্তার এবং এসএসসি পরীক্ষার্থী শাওন সকাল ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। তখন একই এলাকার চানপুর গ্রামের জবেদ আলীর ছেলে হৃদয় ও তার সহযোগী শিশির ছাত্রীদের ইভটিজিং করে। সেই সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাদের বেপরোয়া মোটরসাইকেল শিক্ষার্থীদের ওপর উঠিয়ে দেয়। এতে শিলা, নার্গিস, স্মৃতি, শায়লা, ইতি এবং শাওন আহত হয়। এদের মধ্যে শাওন ও শিলার পা ভেঙে গেছে। তাদের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।পরে স্থানীয় জনতা ধাওয়া দিয়ে বখাটে হৃদয়কে আটক করে পুলিশে দেয়। তবে বখাটে শিশির পালিয়ে যায় বলে জানান শিলার বড় ভাই মো. এরশাদ মিয়া।

ঘটনার বিষয়ে হারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলীম গণবিপ্লবকে বলেন, ‘হৃদয় আমাদের বিদ্যালয়ের ছাত্র হলেও সে বখাটে প্রকৃতির। অপর বখাটে শিশির ও সে প্রায় প্রতিদিন রাস্তায় ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করে বলে অভিযোগ রয়েছে।

মির্জাপুর থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম গণবিপ্লবকে জানান, স্কুলছাত্রীদের উত্ত্যক্ত ও শিক্ষার্থীদের ওপর মোটরসাইকেল উঠিয়ে দেওয়ায় স্থানীয় জনতা হৃদয় নামে এক বখাটেকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ