মির্জাপুরে নির্মিত হলো স্বাধীনতার স্মৃতি ফলক

প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর, ২০২০

মির্জাপুর ১৪ অক্টোবর ২০২০ : ‘টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর পুরাতন বাস স্টেশনে ৫২ বছর পর অবশেষে নির্মিত হলো স্বাধীনতার স্মৃতি ফলক বঙ্গবন্ধু গোল চত্ত্বর’। ‘সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. একাব্বর হোসেন এমপির নিজস্ব উদ্যোগ, সহযোগিতা ও পরামর্শে সড়ক ও জনপথ বিভাগ (মির্জাপুর উপ-বিভাগীয় অফিস) প্রায় ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে স্বাধীনতার স্মৃতি ফলক বঙ্গবন্ধু গোল চত্ত্বর নির্মাণ করেছে’।

‘বুধবার (১৪ অক্টোবর) উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা সরকার হিতেশ চন্দ্র পুলক জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৮ সালে মির্জাপুর পুরাতন বাস স্টেশনে বিশাল জনসভায় ভাষণ দিয়ে ছিলেন। ঐ জনসভায় জাতির জনকের ভাষণ শোনার জন্য বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার নারী পুরুষ এসেছিলেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনককে হত্যার পর মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত মির্জাপুরে পুরাতন বাস স্টেশনে স্মৃতি ফলক নির্মিত হয়নি। দীর্ঘ দিন পর স্থানীয় সংসদ সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও উপজেলা প্রশাসন বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি জড়িত মির্জাপুর পুরাতন বাস স্টেশনে চার রাস্তা মোড়ে ফলক নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করায় তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন’।

‘উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মো. শামীম আল মামুন বলেন, মির্জাপুর পুরাতন বাস স্টেশনকে ঘিরে জাতির জনকের বহু স্মৃতি জড়িত। জাতির জনকের স্মৃতিকে স্মরণ করে রাখতে দীর্ঘদিন পর হলেও মাননীয় এমপি মহোদয় উদ্যোগ নিয়ে স্বাধীনতার স্মৃতি ফলক একটি গোল চত্ত্বর নির্মিত করে দিয়েছেন। এটা আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য মাইল ফলক হয়ে থাকবে’।

‘এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় সহকারী প্রকৌশলী মো. আমিনুল কবিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মির্জাপুর উপজেলার সদরের কুমুদিনী কমপ্লেক্সের প্রবেশ চত্ত্বরের চার রাস্তা মোড়ে প্রায় ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি দৃষ্টি নন্দন বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ফলক (গোল চত্ত্বর) নির্মাণ করা হয়েছে। মুক্তি যুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত এই স্থানটিকে আরও আকর্ষণীয় ও সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সড়কের চারপাশে বিভিন্ন কাজ করা হচ্ছে’।

‘এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক মোস্তাকিম বলেন, স্থানীয় এমপি, মুক্তিযোদ্ধা এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের সহযোগিতায় পুরাতন বাস স্টেশনে স্বাধীনতার প্রতীক বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ফলক নির্মাণ করা হয়েছে। মাননীয় এমপি মহোদয়ের সঙ্গে আলোচনা করে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করা হবে’।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া