যমুনায় নৌকা ডুবিতে আরো একজনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল, ২০২০

ভূঞাপুর ১৯ এপ্রিল : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনায় রবিউল ইসলাম (৪) নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। রোববার দুপুরে যমুনা নদীর সিরাজগঞ্জেরে বেলকুচির ভেলুরচর এলাকায় থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এনিয়ে নিখোঁজ ৩ জনের মধ্যে ২ জনের লাশ পাওয়া গেল। এর আগে শনিবার দুপুরে আলিফা (২২) নামের এক নারীর লাশ করা হয়। তবে এখনো নিখোঁজ রয়েছেন রবিউলের মা রতœা বেগম। তাদের বাড়ি বগুড়ার ধুনট উপজেলায়।

টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার সফিকুল ইসলাম বলেন শুক্রবার দুপুরে যমুনা নদীতে নৌকা ডুবে যায়। ভূঞাপুর থানা পুলিশের সহযোগীতায় শনিবার দ্বিতীয় দফা উদ্ধার অভিযান শুরু করি। শনিবার আলিফা এবং রবিবার রবিউলের লাশ উদ্ধার করা গেছে। লাশ দুটো পরিবারের কাছে হস্তান্ত করা হয়েছে।

গত শুক্রবার দুপুরে ১৪ জন যাত্রী নিয়ে একটি নৌকা যমুনা নদী পাড় হচ্ছিলো। নৌকাটি বঙ্গবন্ধু সেতুর ১৪ নং পিলার কাছে গিয়ে হঠাৎ ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। ১৪ জনের মধ্যে ১১ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও তিনজন নিখোঁজ হন।

ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম বলেন নৌকার যাত্রীরা অধিকাংশই শ্রমিক শ্রেণির। এই নিম্ন আয়ের মানুষগুলো গাজীপুরের জায়াগায় কাজ করেন। তাদের বাড়ি বগুড়া জেলায়। করোনায় লকডাউনের কারনে তারা বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে সড়ক পথে যেতে না পেরে নৌকায় বাড়ি ফিরতেছিলেন। নৌকা ডুবির খবর পেয়ে শুক্রবার এতে ১৪ জনের মধ্যে ১১ জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হই।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া