সখীপুরে বড়চওনা-ধইন্যাজানি সড়ক হুমকিতে

প্রকাশিত : ৮ আগস্ট, ২০১৮
গণবিপ্লব
রিপোর্ট

সখীপুর প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে বড়চওনা-ধইন্যাজানি সড়কের ইন্দ্রারজানি বাজার থেকে গড়বাড়ি তিন রাস্তার মোড় পর্যন্ত সড়কের দু’পাশে পুকুর কাটায় ওই সড়কটি এখন ঝুকিঁপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।
ফলে সরকারি এই রাস্তাটির অস্তিত্ব এখন হুমকির মুখে পড়েছে। এ নিয়ে ওই রাস্তায় চলাচলকারীরা অনেকটাই আপত্তি তুলেছেন।
জানা যায়, উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় সড়ক হচ্ছে বড়চওনা-ধইন্যাজানি সড়ক। সড়কটির কাজ এখন চলমান রয়েছে। ওই সড়কের ইন্দ্রারজানি বাজার থেকে গড়বাড়ি তিন রাস্তার মোড় পর্যন্ত সড়কের দু’পাশে পুকুর কেটেছেন স্থানীয় প্রভাবশালীরা। অনুসন্ধানে জানা যায়, স্থানীয় আ.লীগ নেতা সবুর মিয়াসহ ওই এলাকার প্রভাবশালী আলম মিয়া, ইদ্রিস আলী, হযরত আলী, সিদ্দিক হোসেন ও শফিকুল ইসলাম মিলে সড়কের দু’পাশের জমি লিজ নিয়ে পুকুর কেটে মাছ চাষ করছেন। যে কারণে ওই সড়কটি এখন অনেকটাই ঝুকিঁপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। দু’’পাশে পুকুুর থাকায় চলতি বর্ষায় রাস্তাটি ভেঙে পুকুরের মধ্যে চলে যাচ্ছে। এতে ব্যাপক দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ওই রাস্তায় চলাচলকারীরা।
ওই সড়কের ট্রাক চালক ধীরেন চন্দ্র দাস বলেন, সড়কের দু’পাশে পুকুর থাকায় ওই জায়গাটি এখন অনেক রিস্ক হয়েছে। তাছাড়া গত সপ্তাহে ওই জায়গায় আমার ট্রাকটি ওল্ট্রে গিয়েছিল। অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছি।
স্থানীয় ব্যবসায়ী রিপন মিয়া বলেন, এটি উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় সড়ক হলেও ভারি যানবাহন চলাচল করা সম্ভব নয়। কারণ ওই সড়কের এক জায়গায় দু’পাশে পুকুর থাকায় সড়কের মাটি পুকুরে পড়ে গিয়ে ঝুকিঁপূর্ণ অবস্থায় হয়েছে। এ কারণে প্রায়ই এখানে ভারী যানবাহন ফেঁেস যাচ্ছে। এখানে যেকোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এ বিষয়ে মাছচাষকারী ও আ.লীগ নেতা সবুর হোসেন ও আলম মিয়া ওই সড়কের দু’পাশে পুকুর থাকায় রাস্তাটি টেকসই হবেনা বলে স্বীকার করে বলেন, আমরা এ জমি লিজ নিয়ে পুকুর কেটে মাছ চাষ করছি মাত্র।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তারিকুল ইসলাম বলেন, সড়কটি বড় হলেও ওই জায়গাটি খুবই ঝুকিঁপূর্ণ। যে কারণে ভারী যানবাহন চলা কঠিন হচ্ছে। বিষয়টি আমি উর্দ্ধতন কর্তপক্ষের কাছে জানিয়েছি।
উপজেলা প্রকৌশলী কাজী ফাহাদ কুদ্দুস বলেন, বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে অবগত করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌসুমী সরকার রাখী বলেন, এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ