সখীপুরে যুবকের ছুরিকাঘাতে আহত ৩

প্রকাশিত : ১০ নভেম্বর, ২০১৯
সখীপুর প্রতিনিধি
গণবিপ্লব
প্রতীকী ছবি

সখীপুর ১০ নভেম্বর : টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় এক যুবক ছুরিকাঘাতে তাঁর মা, বাবা ও ছোট ভাইকে গুরুতর আহত করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার (১০ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে সখীপুরের মহানন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত ব্যক্তিরা হলেন মা রাশেদা বেগম (৫৫), বাবা আবদুল হাকিম (৬০) ও ছোট ভাই আবু তাহের (২৫)। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তবে বাবা ও ভাইয়ের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁদের ঢামেক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবকের নাম রাশিদুল ইসলাম (৩৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রতিবেশীরা রাশিদুলকে মারধর করে বাড়িতে আটক করে রেখেছিলেন। তবে তিনি ছুরি দিয়ে নিজেকে রক্তাক্ত করেছেন। তাঁকেও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রতিবেশীরা গণবিপ্লবকে বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে রোববার সকালে রাশিদুল তাঁর মা রাশেদাকে মারধর শুরু করেন। এটা দেখে ছোট ভাই তাহের এগিয়ে এলে তাঁকে ছুরিকাঘাত করেন রাশিদুল। এ সময় বাবা এগিয়ে এলে তাঁকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। এরপর তিনি মাকেও ছুরিকাঘাত করেন। পরে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। তাঁরা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন।

সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা নাজমুল হাসান মাসুদ খান গণবিপ্লবকে বলেন, আহত আবু তাহেরের বুকের বাঁ পাশে ছুরির গুরুতর আঘাত আছে। এ ছাড়া বাবা আবদুল হাকিমের বাঁ পাশের বুকে ও বাঁ হাতে আঘাত লেগেছে। মা রাশেদা বেগমকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

রাশিদুলের চাচাতো ভাই বছির উদ্দিন গণবিপ্লবকে বলেন, রাশিদুলের মাথায় একটু সমস্যা আছে। তবে এ ধরনের ঘটনা ঘটাবেন, তা কখনো কেউ আশা করেনি।

সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমির হোসেন গণবিপ্লবকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় এখনো কোনো অভিযোগ আসেনি।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ