প্রকাশকাল: ২৮ জুন, ২০১৭

সরিষাবাড়ীতে ভূয়া সার্টিফিকেট তৈরি করে জমি দখলের অভিযোগ

রাইসুল ইসলাম:


জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর জামিরা কোনাইরপাড়া গ্রামে ভূমিহীনের ভুয়া সার্টিফিকেট তৈরি করে জমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়,সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর জামিরা কোনাইর পাড়া মৌজার জমি অন্য উপজেলার আব্দুল সালাম পিতা মৃত নিমাই মন্ডল গ্রাম ছিন্না পো. কুমারিয়াবাড়ী উপজেলা কাজিপুর জেলা সিরাজগঞ্জ ভুয়া ভুমিহীন নামে সাবেক চেয়ারম্যান আ. হাই’র কাছে থেকে (ছিন্না ও মাজনাবাড়ী মৌজায় ৪/৫একর জমি থাকলেও) সার্টিফিকেট নিয়ে জমি দখলে পায়তারা করছে। আরো জানা যায়, মোকদ্দমা সংক্রান্ত দাবীকৃত ভূমি সাবেক সন্তুষ ছয়ানী জমিদারের স্বত্ব দখলীয় জোত ভূমি ছিল। বিগত সিএস জরীপে সিএস ২ নং খতিয়ানের জমিদারের নামে রেকর্ড লিপিবদ্ধ হয়। জমিদারী উচ্ছেদের পর তদানীন্তন সরকার দাবীকৃত ভূমি ভোগ দখল থাকাবস্থায় নিজ খাস দখলে আনয়ন পূর্বক ভোগ দখল অবস্থায় বিগত আরওআর জরীপে আরওআর ১নং খতিয়ানে জেলা প্রশাসকের নামে রেকর্ড লিপিবদ্ধ হয়। জেলা প্রশাসক উক্ত ভূমি ভোগবান দখলকার থাকাবস্থায় ১৬৮৫(ঢওও)১৯৮১-১৯৮২নং বন্দোবস্ত মোকদ্দমা মূলে সাবেক ১৩০নং দাগে ৬৬ শতাংশ জমি বাদীপক্ষের পূর্ববর্তী আব্দুল জব্বার বরাবর পত্তন প্রদান করেন। আব্দুল জব্বার মারা গেলে ছেলে কাশেম আলী ও হেলাল উদ্দিন পৈতৃক ওয়ারিশ সূত্রে নালিশী প্রাপ্ত হইয়া ভোগ দখল করিতেছেন। যাহা জমালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার অন্তর্গত মৌজা কোনাইরপাড়া সিএস খতিয়ান নং-২ আরওআর খতিয়ান নং-০১, বিআরএস খতিয়ান নং-১। আরওআর দাগ নং -১৩০ বিআরএস নং-১২২ এই দাগের ০.৬৬ শতাংশ জমি মাত্র। এ বিষয়ে সাবেক চেয়ারম্যান আ. হাই বলেন, আব্দুল সালাম গ্রাম ছিন্না পো. কুমারিয়াবাড়ী উপজেলা কাজিপুর জেলা সিরাজগঞ্জ এর বাসিন্দা, সে আমার কাছে থেকে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে চর জামিরা কোনাইর পাড়া গ্রামে ভূমিহীন সার্টিফিকেট নেয়। আব্দুল সালামের বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

এ রকম আরোও খবর

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ