চেয়ারম্যানের ছেলে সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা

প্রকাশিত : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

ঘাটাইল ৬ ডিসেম্বর : ‘প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ৬ষ্ঠ শেণীর ছাত্রী অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সন্ধায় ঘাটাইলের সাগরদিঘী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হেকমত সিকদারের ছেলে আপন (১৪) সহ তিনজনের বিরুদ্ধে ছাত্রীর মা বাদি হয়ে থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেছে।

ওই ছাত্রী জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে স্থানীয় বিট অফিসের সামনে সেগুন বাগানের কাছে গেলে তার পথরোধ করে হেকমত সিকদারের ছেলে আপন (১৪)সহ তিনজন। তাকে প্রাইভেটকারে উঠতে বলে ওই তিনজন। পরে দৌড়ে ছাত্রীটি স্কুল গেইট পর্যন্ত গেলে আপনসহ আরো কয়েক জন তার পথরোধ করে জোর করে গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এতে তার চিৎকার শুনে স্কুলের শিক্ষকসহ স্থানীয়রা এসে ছাত্রীকে উদ্ধার করে। এসময় উত্তেজিত জনতার তোপের মুখে তারা পালিয়ে যায়।

অপহরাণের শিকার ওই ছাত্রী আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে চেয়ারম্যানের ছেলে আপন আমাকে স্কুলে যাওয়ার পথে নানাভাবে উত্তক্ত করে আসছে।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সালমা খানম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সকালের পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর ১ টার দিকে হাউ মাউ কান্নার শব্দ শুনে স্কুল গেটে বেরিয়ে দেখি অপহরণকারিরা আমার স্কুলের ছাত্রীকে একটি গাড়ীতে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। পরে স্থানিয়দের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় স্কুলের সকল শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা সঙ্কিত হয়ে পরেছে।

সাগরদিঘী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হেকমত সিকদার বলেন, ঘটনাটি সত্য। মেয়ের মা বাদি হয়ে ঘাটাইল থানায় একটি অপহরণ মামলা করেছে।

ঘাটাইল থানার ডিউটি অফিসার জহিরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পরে মেয়ের মা বাদি হয়ে ৭/৩০ ধারায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

ঘাটাইলের ইউএনও মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, সাগরদিঘিতে একটা ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। তবে কি ঘটনা তা আমার জানা নাই।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

এইমাত্র পাওয়া