উন্নয়নের নির্মাণ কাজ শেষ হলে দেশের চেহারাই পাল্টে যাবে…টাঙ্গাইলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৮ এপ্রিল, ২০১৬

গণবিপ্লব রিপোর্টঃ 

124
স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খ. মোশারফ হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নে কাজ করছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় সরকার দেশে পর্যাপ্ত সংখ্যক ব্রিজ-কালভার্ট-সড়ক-মহাসড়কসহ বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ করছে। এসব উন্নয়ন কাজের নির্মাণ কাজ শেষ হলে বাংলাদেশের চেহারাই পাল্টে যাবে। মন্ত্রী বলেন, সরকারের উন্নয়ন কাজে ঈর্ষান্বিত হয়ে বিএনপি নেতারা প্রলাপ বকছেন। তিনি বৃহস্পতিবার(২৮ এপ্রিল) টাঙ্গাইলের মির্জাপুর ভারতেশ্বরী হোমস্ এবং কুমুদিনী হাসপাতাল পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এরআগে সকালে তিনি ভারতেশ্বরী হোমসে পৌঁছে ছাত্রীদের মনোজ্ঞ শরীর চর্চা প্রদর্শনী উপভোগ করেন। তিনি কুমুদিনী হাসপাতালের আধুনিক চিকিৎসা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন এবং চিকিৎসাধীন রোগীদের খোঁজ-খবর নেন।
পরে মন্ত্রী প্রায় ১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত বংশাই নদীর উপর বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন এমপি ব্রিজ ও বহুরিয়া ইউনিয়নে লৌহজং নদীর উপর নির্মিত বীর মুক্তিযোদ্ধা শিল্পপতি নূরুল ইসলাম ব্রিজের উদ্বোধন করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. একাব্বর হোসেন, টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্রশাসক ফজলুর রহমান খান ফারুক, জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব হোসেনসহ স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রনালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, উপজেলার মির্জাপুর-পাথরঘাটা রাস্তায় সদরের বংশাই নদীর ওপর ত্রিমোহন খেয়াঘাটে ৩০০ মিটার দৈর্ঘ্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন এমপি ব্রিজটির নির্মাণ ব্যয় হয়েছে ১২ কোটি টাকা।
অপরদিকে, একই উপজেলার দেওহাটা-বিলগজারিয়া রাস্তার বহুরিয়া খেয়াঘাটে লৌহজং নদীর ওপর ১৪০ মিটার দৈর্ঘ্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শিল্পপতি নূরুল ইসলাম ব্রিজে ব্যয় হয়েছে ৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত ব্রিজ দুটির উদ্বোধন হওয়ায় মির্জাপুর উপজেলার উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের মধ্যে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। ব্রিজ দুটি উদ্বোধন হওয়ায় এলাকাবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি পুরণ হল।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া