টাঙ্গাইলের যৌনপল্লী পুড়ে ছাই; কোটি টাকার ক্ষতি

প্রকাশিত : ৩ অক্টোবর, ২০১৯

টাঙ্গাইল ০৩ অক্টোবর: টাঙ্গাইল পৌরসভার কান্দাপাড়া যৌনপল্লীর ৩০ টি ঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) দুপুরে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুন ধরে ৩টি বাড়ির ৩০ টি ঘর পুড়ে ছাই হয়। এতে প্রায় কোটি টাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগীরা।

জানা যায়, যৌনপল্লীর রহিম কর্মকারের বাড়ির ভাড়াটিয়া প্রিয়াংকা দুপুরের রান্না বসিয়ে বাহিরে পানি আনতে গেলে গ্যাস সিলিন্ডার লিকজনিত ত্রুটির কারণে আগুন লেগে মুহুর্তের মধ্যে ৩টি বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ৩০ ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এছাড়াও আগুনের লেলিহান শিখা পার্শ্ববর্তী মঞ্জু ও মিনা’র বাড়িতে আগুন লেগে আরো ৩০টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। নিঃস্ব হয়ে পড়েছে প্রায় ১০০ জন যৌনকর্মী।

ভূক্তভোগি লাবনী আক্তার, প্রিয়া, পপি, সাবিনা, মর্জিনা ও মিনা গণবিপ্লবকে জানায়, আমরা আগুন লাগার সাথে সাথে নিজেদের জীবন বাঁচাতে এক কাপড়ে বেরিয়ে আসি। আমাদের ঘরে রাখা স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকা, আসবাবপত্র, বাড়ির দলিলপত্রাদি কোন কিছুই বের করতে পারিনি। সব হারিয়ে এখন আমরা নিঃস্ব হয়ে গেলাম।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিসের ডিএডি আব্দুর রাজ্জাক গণবিপ্লবকে বলেন, খবর পাওয়া মাত্র আমরা ঘটনাস্থলে যাই এবং আমাদের ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে এবং পার্শ্ববর্তী পুকুর থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে মুহুর্তেই ৩টি বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়ে যায়।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন গণবিপ্লবকে বলেন, আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আমাদের ফোর্স যারা পতিতালয়ের চারিপাশে নজরদারি রাখি। যাতে ঘটনাস্থলে লুটপাটের কোন ঘটনা না ঘটে।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া