নাগরপুরে দাদার হাতে নাতি খুন

প্রকাশিত : ৬ জানুয়ারী, ২০২২

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে দাদার হাতে নাতি খুন হয়েছে। উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের ইরতা পূর্বপাড়া গ্রামে দাদার লাঠির আঘাতে নাতি মো. রিফাত মিয়ার(১৩) চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যু হয়। নিহত রিফাত সহবতপুর হাই স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র ও একই গ্রামের মো. রেজাউল মিয়ার ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার(৫ জানুয়ারি) বিকালে সহবতপুর বাজার থেকে রিফাতের বাবা রেজাউল মিয়া বড় একটি পাঙ্গাস মাছ কিনে বাড়িতে নিলে দাদা রাজ্জাক মিয়ার(৬৫) মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বেশি টাকা খরচ করে বড় মাছ কেনাকে কেন্দ্র করে রাজ্জাক মিয়ার সাথে তার ছেলে ও নাতির সাথে কথা কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে পরিবারের অন্য সদস্যরা একজোট হয়ে স্কুলছাত্র রিফাত ও তার মা-বাবাকে মারপিট করে। এতে রিফাত ও তার বাবা রেজাউল মারাত্মকভাবে আহত হয়। এলাকাবাসী তাদেরকে উদ্ধার করে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। চিকিৎসারত অবস্থায় রাত প্রায় ১টার দিকে রিফাতের মৃত্যু হয়।

নিহত রিফাতের বাবা রেজাউল মিয়া জানান, তিনি ঢাকায় একটি আড়তে কাজ করি। ছুটি নিয়ে বাড়িতে এসে বুধবার বিকালে সহবতপুর বাজার থেকে একটি পাঙ্গাস মাছ কিনে আনেন।

তার বাবা, মা ও ছোট ভাইয়ের স্ত্রী ওই মাছ কেনাকে কেন্দ্র করে তার সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারপিট করে। এতে তার ছেলে রিফাত মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হয়। ওই রাতেই রিফাত চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায়।

নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ফাতেমাতুজ্জহুরা জানান, বুধবার রিফাত ও তার বাবা রেজাউল মাথায় আঘাত নিয়ে হাসপাতালে আসে। এ সময়ে রিফাত বমি সহ মাথা ব্যাথা ও চোখে ঝাপসা দেখছে জানালে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

রিফাতের আত্ময়ীরা তাকে টাঙ্গাইলে না নিয়ে আবার হাসপাতালে নিয়ে এলে অভিভাবকের অনুমতি নিয়ে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে রাত একটার দিকে রিফাত মারা যায়।

নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, হাসপাতাল থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। লাশ উদ্বার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

You must be Logged in to post comment.

তারিখ অনুযায়ী সংবাদ পড়ুন

জানুয়ারী 2022
রবি সোম বুধ বৃহ. শু. শনি
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিন।