বিনম্্র শ্রদ্ধায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

প্রকাশিত : ১৬ আগস্ট, ২০১৫

DSC06386গণপ্লিব রিপোর্টঃ টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন, আওয়ামীলীগ, আওয়ামী যুবলীগ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের উদ্যোগে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদৎ বার্ষিকী নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল, সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জেলার সকল সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারি ভবন সমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রকৃতিতে পুস্পার্ঘ অর্পণ, কালো ব্যাজ ধারণ, আলোচনা সভা, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর উপর নির্মিত ‘চিরঞ্জীব বঙ্গবন্ধু ও আমাদের বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মসজিদ-মন্দির সহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আতœার আগফেরাত কামনা, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, কাঙালি ভোজ ইত্যাদি।
টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শনিবার সকালে শহরের শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যান থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী, বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও মানবাধিকার সংগঠনের কর্মী এবং বিভিন্ন শ্রেণিপেশার কয়েক হাজার লোক স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেন।
শোক র‌্যালিটি স্থানীয় পৌর উদ্যান থেকে শুরু হয়ে শহীদ মিনার, নিরালা মোড়, পুরাতন বাসষ্ঠ্যান্ড, রেজিষ্ট্রি পাড়া, জেলা সদর রোড হয়ে ভাসানী হল মিলনায়তনে গিয়ে শেষ হয়। ভাসানীহল মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে ‘চিরঞ্জীব বঙ্গবন্ধু ও আমাদের বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।
পরে জেলা প্রশাসক মো. মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সাংসদ মো. ছানোয়ার হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের কমান্ডার খ. ফজলুল হক ডিপটি, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম, সাবেক পিপি এস আকবর খান, জেলা সিনিয়র তথ্য অফিসার কাজী গোলাম আহাদ প্রমুখ।
এদিকে, জেলার ১২টি উপজেলা সদর ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও পাড়া-মহল্লায় জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনকের ৪০তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে অনুরূপ কর্মসূচি পালন করা হয়।

ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়
Tangail-mbstu-shok dibos-15.8.15মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি ও স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদৎ বাষির্কী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল কালো ব্যাচ ধারণ, জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন, ক্যাম্পাসস্থ শহীদ মিনার এবং ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক ও পুস্পমাল্য অর্পণ। এছাড়া, বঙ্গবন্ধুর রূহের মাগফিরাত কামনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আলাউদ্দিন, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, রেজিস্ট্রার, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় চেয়ারম্যান, হল প্রভোস্ট, প্রক্টর, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ কর্মকর্তা-কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন।

নাগরপুর
SAM_5379নাগরপুর থেকে আব্দুল আলীম জানান, দিনভর নানা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নাগরপুরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও উপজেলা প্রশাসন পৃথকভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও শোক র‌্যালি বের করে। র‌্যালি শেষে উপজেলা চত্তরে শোক মঞ্চে আয়োজিত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সাংসদ খন্দকার আবদুল বাতেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতা তারেক শামস হিমু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. জাকিরুল ইসলাম উইলিয়াম, সাধারণ সম্পাদক মো. কুদরত আলী, ইউএনও আলমগীর হুছাইন, আ’লীগের সাবেক সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার, আ’লীগ নেতা অ্যাডভোকেট দাউদুল ইসলাম দাউদ, ছাত্রলীগ সভাপতি মো. ফরিদুর রহমান ফরিদ প্রমুখ।

সাপ্তাহিক গণবিপ্লব
এইমাত্র পাওয়া
error: দাঁড়ান আপনি জানেন না কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ। কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিন।